এখনো ডিপ কোমায় মোহাম্মদ নাসিম

ঢাকা : করোনাভাইরাস ও ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিমের শারীরিক পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন সাবেক এই স্বাস্থ্যমন্ত্রী এখনো ডিপ কোমায় রয়েছেন।

সোমবার সন্ধ্যায় মোহাম্মদ নাসিমের ছেলে ও সাবেক এমপি তানভীর শাকিল জয় সমকালকে বলেন, তার বাবা এখনও ডিপ কোমায় রয়েছেন। তার শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রয়োজন অনুযায়ী সর্বোচ্চ চিকিৎসার পদক্ষেপ নিচ্ছেন তারা।

মোহাম্মদ নাসিমের সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা জানতে সোমবারও মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা তার শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেছেন। তারাও এখনো তার সুস্থতার বিষয়ে এখনো কিছু বলা যাবে না বলে জানিয়েছেন।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর গত ১ জুন থেকে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন মোহাম্মদ নাসিম। প্লাজমা থেরাপি দেওয়ার পর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় ৫ জুন তাকে আইসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তরের কথা ছিল। কিন্তু ওইদিনই ভোর সাড়ে ৫টায় ব্রেইন স্ট্রোক করায় অবস্থার গুরুতর অবনতি ঘটে। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. রাজিউল হকের নেতৃত্বে তার মস্তিষ্কে জরুরি অস্ত্রোপচার করা হয়। পরে চিকিৎসকরা তাকে আইসিইউতে ভেন্টিলেশনে এবং ৪৮ ঘণ্টার নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছিলেন। ৬ জুন তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি ঘটায় ১৩ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। এই বোর্ড বৈঠক করে তাকে পর্যবেক্ষণের সময়সীমা আরও ২৪ ঘণ্টা বাড়িয়ে মোট ৭২ ঘণ্টা করেন।

বিকেলে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তারা জানান, মোহাম্মদ নাসিমের শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সংকটাপন্ন। তিনি ডিপ কোমায় রয়েছেন। ভেন্টিশেলনের মাধ্যমে তার কৃত্রিম শ্বাসপ্রশ্বাসের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এই ৭২ ঘণ্টা সোমবার শেষ হলেও অবস্থার এখনও উন্নতি ঘটেনি।

Facebook Comments
ভাগ