মানিকগঞ্জে আরো ১২জনসহ মোট করোনায় আক্রান্ত ৩৭৩ জন

মানিকগঞ্জ: গত ২৪ ঘন্টায় মানিকগঞ্জে নতুন করে আরও ১২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা হলো ৩৭৩ জন। নতুন শনাক্তদের মধ্যে ঘিওর ও সিংগাইর উপজেলায় চার জন করে এবং সাটুরিয়া, হরিরামপুর, শিবালয় ও দৌলতপুর উপজেলায় রয়েছেন একজন করে।

বুধবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেন মানিকগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. রফিকুন নাহার বন্যা।

তিনি বলেন, ‘গত ২৪ ঘন্টায় ১৫৪টির রিপোর্ট পাওয়া গেছে। রিপোর্টে ১২টির পজিটিভ পাওয়া গেছে এবং ১৪২ টির নেগেটিভ ফলাফল এসেছে। এ পর্যন্ত মোট তিন হাজার ৭৩৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকার বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হয়েছিল। এর মধ্যে তিন হাজার ৩৮২টির রিপোর্ট পাওয়া গেছে। যাতে পজিটিভ পাওয়া গেছে ৩৭৩ জনের দেহে। এদের মধ্যে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় ১০৫ জন, সাটুরিয়া উপজেলায় ৭৩জন, সিংগাইর উপজেলায় ৭২ জন, ঘিওর উপজেলায় রয়েছেন ৫৪ জন, হরিরামপুর উপজেলায় ৩২, শিবালয় উপজেলায় ২৭ জন ও দৌলতপুর উপজেলায় রয়েছেন ১০জন।’

এদিকে শুক্রবার (৬জুন) রাতে মানিকগঞ্জ জেলা হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া ১৮ বছরের তরুণী করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। আজ (বুধবার) দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালটির তত্ত্বাবধায়ত ডা. আরশ্বাদ উল্লাহ।

তিনি বলেন, ‘ঢাকার ধামরাই উপজেলার জালসা গ্রামের ওই তরুণী (আমেনা খাতুন, পিতা-জালাল উদ্দিন) শরীরে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে গতকাল শুক্রবার সকাল সোয়া ৮টায় মানিকঞ্জ জেলা হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আসেন। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁর শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে তাঁকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করেন। তিনি করোনায় আক্রান্ত কি না তা নিশ্চিত হতে দুপুর ১২টার দিকে তাঁর শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষার জন্য ঢাকার সাভারে বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউশনে পাঠানো হয়। কিন্তু তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে রাতেই তাঁর মৃত্যু হয়। আজ তাঁর রিপোর্ট পাওয়া গেছে। তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।’

এনিয়ে জেলায় উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ১৫ জনের মধ্যে ৪জনের দেহে করোনা শনাক্ত হলো। চার জনের মধ্যে মধ্যে দুই জন সিংগাইর উপজেলায়, একজন হরিরামপুর উপজেলায় এবং অন্যজন ঢাকার ধামরাই উপজেলার।

Facebook Comments Box
ভাগ